৫মাস পর দেশে ফিরলেন কলকাতায় ডুবে যাওয়া মেরিন ট্রাস্ট জাহাজের ৯ নাবিক

Dhaka Post Desk

বিশেষ প্রতিনিধি

28 November, 2022

Views

দীর্ঘ ৫মাস পর দেশে ফিরেছেন ‘মেরিন ট্রাস্ট-১’ জাহাজের ৯ নাবিক। কলকাতা শ্যামাপ্রাসাদ মূখার্জি বন্দর থেকে পণ্য বোঝাই করে চট্টগ্রাম বন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রার শুরুতে সেখানকার জেটিতেই গত ২৪ মার্চ কাত হয়ে ডুবে যায় বাংলাদেশি মালিকানাধীন জাহাজ ‌’মেরিন ট্রাস্ট-১’। এরপর থেকে জাহাজে থাকা ১৫ নাবিক কলকাতা বন্দরের পাশে মেরিন হোস্টেলে আটকা পড়েন। উদ্ধার করতে না পেরে জাহাজটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করে জাহাজ মালিকপক্ষ।

এরপর থেকে বাংলাদেশে ফেরার জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে যোগাযোগ করে আটকে পড়া নাবিকরা। কিন্তু সুরাহা হচ্ছিল না। এরপর বাধ্য হয়ে গত ঈদুল আজহায় নিজেদের ফেসবুক পেইজে ভিডিও আপলোড করে দেশে ফেরার আকুতি জানান। আটকে পড়ার ৫ মাস পর গত বুধবার ৯ নাবিক বিমানযোগে ঢাকা শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছেন। বাকিরা এখনো কলকাতার মেরিন হোস্টেলে আটকা আছেন।
জানতে চাইলে মেরিন ট্রাস্ট গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক ক্যাপ্টেন শেখ সাহিকুল ইসলাম বলেন, ‌’অনেক কূটনৈতিক চেষ্টার পর গত বুধবার জাহাজের ৯ নাবিককে আমরা দেশে আনেত সক্ষম হয়েছি। তারা প্রত্যেকে নিজ বাড়ীতে পরিবারের কাছে ফিরেছেন। জাহাজে থাকা বাকি নাবিকরা এখনো মেরিন হোস্টেলে আছেন। তাদের দ্রুত ফেরানোর প্রক্রিয়া চলছে।
তিনি বলেন, কাত হয়ে ডুবে থাকা জাহাজটি দ্রুত উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ মার্চ ভারতের কলকাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় বন্দরের জেটিতে ‘মেরিন ট্রাস্ট-১’ জাহাজটি কাত হয়ে পণ্যভর্তি কনটেইনার পানিতে পড়ে যায়। পণ্যবোঝাই করে কলকাতা থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগেই জাহাজটি কাত হয়ে যায়। এরপর জাহাজে থাকা কনটেইনার একে একে পানিতে পড়তে থাকে। কাত হয়ে যাওয়া বাংলাদেশি এ জাহাজটিতে ২০ ফুট দীর্ঘ ১২০টি ও ৪০ ফুটের ৪৫টি কনটেইনার ছিল। বোঝাই অবস্থায় কন্টেইনারের ওজন ছিল ৩ হাজার ৮৯ মেট্রিকটন।
এদিকে দুর্ঘটনার পরপরই জাহাজের ১৫ নাবিককে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়। তারা কলকাতা বন্দর কর্তৃপক্ষের হেফাজতে কলকাতা মেরিন ক্লাব হোস্টেলে অবস্থান নেন। দীর্ঘ সময় ধরে তারা সেখানেই ছিলেন। এরইমধ্যে উদ্ধার করতে না পেরে জাহাজটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.