২৬ দিন ধরে ড্রাইডক জেটিতে আটকা ৮শ কোটি টাকার রপ্তানি পণ্য; নির্ভার বিজিএমইএ

Dhaka Post Desk

বিশেষ প্রতিনিধি

30 June, 2022

Views

৭শ একক কন্টেইনার রপ্তানি পণ্য এতদিনে চট্টগ্রাম থেকে জাহাজে করে ইউরোপ-আমেরিকায় বিদেশি ক্রেতার কাছে পৌঁছার কথা ছিল। কিন্তু জাহাজ দুর্ঘটনায় পড়ে এখন সব রপ্তানি পণ্য কর্ণফুলী নদীর পাড়ে ড্রাইডক জেটিতে আটকা পড়েছে। গত কুতুবদিয়া জলসীমায় গত ১৪ এপ্রিল থেকে ১০মে পর্যন্ত ২৬ দিন অতিবাহিত হলেও পণ্যগুলো বাংলাদেশ সীমানা পার হতে পারেনি।
তবে এটা ঠিক চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যান কর্তৃপক্ষের চ্যালেঞ্জিং সিদ্ধান্ত না থাকলে সেই রপ্তানি পণ্য এবং জাহাজ এতদিন বঙ্গোপসাগরেই আটকে থাকতো। বন্দরের সাহসী সিদ্ধান্তে ৮শ একক রপ্তানি পণ্যসহ মোট ১১শ ৫৬ একক কন্টেইনার বোঝাই ‌’হাইয়ান সিটি’ জাহাজটি বিশেষ নিরাপত্তা দিয়ে কর্ণফুলী নদীর দক্ষিন পাড়ে কর্ণফুলী ড্রাইডক জেটিতে ভিড়ানো হয়েছে। সেখানেই জেটিতে মেরামত চলছে জাহাজটির আর সেখানেই আটকা পড়েছে এসব রপ্তানি পণ্য।

অন্য যেকােন সময় কয়েকটি রপ্তানি পণ্য আটকা পড়লে হৈ চৈ ফেলে দিতে গার্মেন্ট মালিকরা। অথচ এতগুলো রপ্তানি পণ্য ড্রাইডক জেটিতে পড়ে থাকলেও গার্মেন্ট মালিকরা নির্ভার। এর মুল কারণ পণ্যগুলো রপ্তানি পণ্য উৎপাদন শেষে বিদেশি ক্রেতার অনুমোদিত বেসরকারী কন্টেইনার ডিপোতে পৌঁছানো পর্যন্ত দায়িত্ব দেশের গার্মেন্ট মালিকদের। এরপর পণ্যের জাহাজীকরণ থেকে শুরু করে ক্রেতা পর্যন্ত পৌঁছানো বিদেশিদের দায়িত্ব ফলে। বিজিএমইএ’র এখন উদ্বেগ উৎকণ্ঠা সংবাদ সম্মেলন নেই।
তৈরি পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর প্রথম সহসভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলছেন, বেসরকারী কন্টেইনার ডিপো পর্যন্ত পৌঁছানোই আমাদের দায়িত্ব। সেটি অনটাইমে পৌঁছানো গেলে আমাদের অর্থছাড় পেতে কোন সমস্যা নেই। আমাদের খুব একটা উদ্বেগের কারন নেই। তবে এমন নয় যে আমরা চুপ মেরে আছি।
তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর নিজে উদ্যোগী হয়ে এমন সাহসী কাজ না করলে রপ্তানি পণ্যবাহি জাহাজটি হয়তো এতদিন সাগরেই ভাসতো। আরো বড় দুর্ঘটনায় পড়তে পারতো। এজন্য চট্টগ্রাম বন্দর অবশ্যই প্রশংসিত কাজ করেছে।

এদিকে ‘হাইয়ান সিটি’ জাহাজটি কর্ণফুলী ড্রাইডক জেটিতে মেরামত কাজ করছে প্রান্তিক মেরিন সার্ভিসেস। মেরামত শেষে কবে নাগাদ জাহাজটি সচল করা যাবে তা জানতে প্রান্তিক মেরিনের এক কর্মকর্তা বলছেন, ১০-১৫ দিন লাগতে পারে। খুবই জটিল কাজ। আমরা পানির নীচে ডুবুরি দিয়ে মেরামত করে সচলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.