১ আগস্ট চেন্নাই-ইউরোপ সরাসরি জাহাজ সার্ভিস চালু করছে মায়ের্কস লাইন

বিশেষ প্রতিনিধি
ট্রান্সশিপমেন্ট বন্দরগুলোতে ব্যাপক জাহাজজট এড়িয়ে দ্রুত রপ্তানি পণ্য পরিবহন নিশ্চিত করতে এবার ভারত থেকেই সরাসরি ইউরোপে জাহাজ সার্ভিস চালু করছে বিশ্বের শীর্ষ শিপিং কম্পানি মায়ের্কস লাইন। আগামী ১ আগস্ট থেকে ভারতের চেন্নাইয়ের এননোর সমুদ্র বন্দর থেকে সরাসরি ইউরোপের বন্দরে পণ্য পরিবহন শুরু করবে; সার্ভিসটির নাম দেয়া হয়েছে এমই-৭। সপ্তাহে ৮টি জাহাজ দিয়েই চলবে নতুন এই সার্ভিস।
বন্দর ব্যবহারকারীরা বলছেন, এরমধ্য দিয়ে ট্রান্সশিপমেন্ট বন্দর-সিঙ্গাপুর, কলম্বো বন্দরের পর নির্ভরশীলতা কমিয়ে দ্রুত রপ্তানি পণ্য জাহাজীকরণ করা যাবে।  বাংলাদেশ চাইলে চেন্নাইয়ের এননোর বন্দর হয়েই পণ্য ইউরোপে পাঠাতে পারবেন। নতুন রুটটি হবে এরকম-ভারতের এননোর, কলম্বো, সালালাহ, আলজেরিয়াস, ফেলিক্সটো, রটারডাম, ব্রেমারহেভেন, জেদ্দা, সালালাহ, কলম্বো এবং এন্নোর।
মায়ের্কস লাইনের পশ্চিম এবং মধ্য এশিয়ার আঞ্চলিক প্রধান ভবান ভেমপতি এক বিবৃতিতে বলেছেন, ট্রান্সশিপমেন্ট বন্দরগুলোর জাহাজজট  এড়িয়ে বিভিন্ন বিকল্প পথ নিয়ে আমরা স্টাডি করেছি। এরমধ্যে ভারতের এননোর বন্দর সবচে ভালো বিকল্প মনে হয়েছে আমাদের। শুধু ভারতের দক্ষিনাঞ্চলই নয়; বাংলাদেশের গ্রাহকরা এই সুযোগ নিতে পারবেন।
এর আগে সিঙ্গাপুর-কলম্বোর মতো ট্রান্সশিপমেন্ট  বন্দরের জাহাজজট এড়িয়ে ভারত হয়ে পণ্য ইউরোপ -আমেরিকা পাঠাচ্ছিল কয়েকটি বিদেশি শিপিং লাইন। এরমধ্যে অন্যতম হচ্ছে, জার্মান শিপিং কম্পানি হ্যাপাগ-লয়েড। প্রতিষ্ঠানটি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে দ্রুত রপ্তানি পণ্য পাঠাতে শিপিং লাইনগুলো ভারতের কৃঞ্চপাটনাম বন্দরকে বিকল্প হিসেবে বেছে নিচ্ছেন।
হ্যাপাগ লয়েডের বাংলাদেশের মহাব্যবস্থাপক আবুল কালাম আজাদ বলছেন, কৃষ্ণপাটনাম বন্দর থেকে চেন্নাই ও কলম্বো হয়ে সপ্তাহে এক দিন বড় জাহাজ (মাদার ভ্যাসেল) ইউরোপে যায়। সিঙ্গাপুর-কলম্বোতে কনটেইনারের জট রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে বৈশ্বিক সংকটের কারণে নিয়মিত পথের পাশাপাশি এ পথে কনটেইনার আনা-নেওয়া বেড়েছে। সংকটের সময় গ্রাহকদের সেবা দিতে বিকল্প পথে রপ্তানি পণ্য পরিবহনের চেষ্টাই এ সময়ে স্বস্তির খবর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *