রপ্তানি পণ্যেও কাস্টমসে অটোমেশন পদ্ধতি চালু হচ্ছে

Dhaka Post Desk

বিশেষ প্রতিনিধি

7 December, 2021 13 Views

13

পণ্য চালান শুল্কায়ন শেষে খালাসে এতদিন শুধুমাত্র আমদানি পণ্যের ক্ষেত্রেই অটোমেশন পদ্ধতি চালু ছিল চট্টগ্রাম কাস্টমসে। অর্থ্যাৎ ইমপোর্ট জেনারেল মেনিফেস্ট (আইজিএম) জমা দেয়া যেতাে অনলাইনে। আর রপ্তানি পণ্যের ক্ষেত্রে এক্সপোর্ট জেনারেল মেনিফেস্ট (ইজিএম) জমা দেয়া হতো সনাতন পদ্ধতিতে। এতে অনেক সময় পণ্য জাহাজে উঠার পরও ইজিএম না পাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সেই সমস্যার সমাধানে এবার ইজিএম অনলাইনে জমার পদ্ধতি চালু করতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম কাস্টমস। এজন্য আগামী ১০ নভেম্বরের সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে কাস্টমস।

জানতে চাইলে চট্টগ্রাম কাস্টমসের অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ সফিউদ্দিন বলেন, আমরা পরীক্ষামূলকভাবে এই পদ্ধতি চালু করছি; আশা করছি রপ্তানি পণ্য শুল্কায়ন, জাহাজীকরণে সুফল মিলবে। সময় সাশ্রয় হবে। এজন্য সক্ষমতা বাড়ানো হচ্ছে।

জানা গেছে, রপ্তানি পণ্য জাহাজীকরনের আগে কারখানা থেকে প্রথমে আনতে হয় বেসরকারী ১৯টি কন্টেইনার ডিপোতে। সেই ডিপােতে পণ্যের সব তথ্য সম্বলিত ইজিএম তৈরি হতো সনাতন পদ্ধতিতে। নতুন পদ্ধতিতে ইজিএম তৈরী করতে হবে অনলাইনে বা ডিজিটালি।

বেসরকারী কন্টেইনার ডিপো মালিকদের সংগঠন বিকডা মহাসচিব রুহুল আমিন সিকদার বলেন, ইজিএম’র ফরম্যাট দেয়া হয়েছে শিপিং এজেন্ট এবং ফরোয়ার্ডারকে। সেই অনুযায়ী তথ্য তৈরী করে তারা জমা দিবেন। ফলে এই প্রযুক্তির সুফল পেতে আমাদের খুব বেশি বেগ পেতে হবে না।

এদিকে বেসরকারী কন্টেইনার ডিপাে থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আইজিএম তৈরী করেন শিপিং এজেন্টরা। তাদের প্রস্তুতি সম্পর্কে বাংলাদেশ শিপিং এজেন্ট এসোসিয়েশন পরিচালক খায়রুল আলম সুজন বলছেন, এখন আইজিএম’এ একটি ইউজার আইডি দিয়ে আমরা অনলাইনে কার্যক্রম সম্পন্ন করি। ইজিএম’র পৃথক আরেকটি আইডি দিলে তখন দুবার কাজ করতে গিয়ে সার্ভার জটিলতায় পড়া নিয়ে জটিলতা তৈরী হতে পারে। এজন্য সার্ভারের গতি বাড়ানো এবং সক্ষমতা বাড়ানো দরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *