বিশ্বের ব্যস্ত ১০০ বন্দরের তালিকায় চট্টগ্রাম বন্দর ৬৪তম

Dhaka Post Desk

বিশেষ প্রতিনিধি

19 October, 2021 2 Views

2

এম এন ইসলাম, চট্টগ্রাম
বিশ্বের ১০০টি ব্যস্ত বন্দরের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরের স্থান এখন ৬৪তম। এক বছরের ব্যবধানে ছয় ধাপ
এগিয়েছে এই বন্দর। ২০১৮ সালে বিশ্বের বন্দরগুলোর কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যা হিসাব করে এই
তালিকা করা হয়েছে। তালিকাটি গত বৃহস্পতিবার প্রকাশ করেছে লন্ডনভিত্তিক শিপিং বিষয়ক বিশ্বের
সবচেয়ে পুরোনো সংবাদমাধ্যম ‘লয়েডস লিস্ট’।
তালিকা অনুযায়ী, চট্টগ্রাম বন্দর ২০১৮ সালে ২৯ লাখ কন্টেইনার পরিবহন করেছে। ২০১৭ সালে তা
ছিল ২৬ লাখ ৬৭ হাজার। বন্দরের জেটি, পানগাঁও টার্মিনাল ও কমলাপুর কন্টেইনার ডিপো মিলে
কন্টেইনার পরিবহনের এই সংখ্যা হিসাব করা হয়েছে।
এক বছরের ব্যবধানে কনটেইনার পরিবহনে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৮ দশমিক ৯ শতাংশ। শীর্ষ ১০০ বন্দরের
গড় প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৪ দশমিক ৮ শতাংশ।
চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল জুলফিকার আজিজ বলেন, বিশ্বের ব্যস্ততম বন্দরের
তালিকায় এগিয়ে যাওয়া বন্দরের জন্য বড় সাফল্য। আগামীতে চট্টগ্রাম বন্দর এই তালিকায় আরও
এগিয়ে যাবে। কন্টেইনার পরিবহনের সংখ্যা বাড়তে থাকায় বন্দরকেন্দ্রিক নানা প্রকল্পের কাজ চলছে।
এতে বন্দরের সক্ষমতা বাড়বে।
বৈশ্বিক এই ক্রমতালিকা শুধু কন্টেইনার পরিবহনের সংখ্যা হিসাব করে করা হয়। এই তালিকায় সেবার
মান বিবেচনা করা হয় না। তবে তালিকার এগিয়ে যাওয়ার অর্থ ওই দেশের বৈদেশিক বাণিজ্য বাড়ছে।
শিল্প খাতের উৎপাদনও বাড়ছে।
তালিকা অনুযায়ী, কন্টেইনার পরিবহনে বিশ্বের সেরা ১০০ বন্দরের মধ্যে শীর্ষস্থানে আছে চীনের সাংহাই
বন্দর। গত বছর ওই বন্দর দিয়ে ৪ কোটি ২০ লাখ কন্টেইনার পরিবহন হয়। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা
সিঙ্গাপুর বন্দর দিয়ে ২০১৮ সালে কন্টেইনার পরিবহন হয় ৩ কোটি ৬৫ লাখ। কনটেইনার পরিবহনে
শীর্ষ ১০টি বন্দরের মধ্যে চীনের ৬টি বন্দর রয়েছে।
‘লয়েডস লিস্ট’ এর তালিকায় ২০১৭ সালে চট্টগ্রাম বন্দর ছিল ৭০তম অবস্থানে। এর আগে ২০১৬ সালে
ছিল ৭১তম। তালিকায় বাংলাদেশের শুধু চট্টগ্রাম স্থা পেলেও অন্য বন্দর স্থান পায়নি। মোংলা বন্দর
দিয়ে কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যা কম হওয়ায় তালিকায় স্থান পায়নি বলে জানান বন্দর কর্মকর্তারা।
এ বিষয়ে চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড বাড়ছে। এতে
কন্টেইনার পরিবহনের সংখ্যাও বাড়ছে। এ জন্য তালিকার উন্নতি হয়েছে। এটি অবশ্যই আমাদের জন্য
সুখবর। #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *