জাহাজের ধাক্কায় অচল গ্যান্ট্রি ক্রেন, চট্টগ্রাম বন্দরে একটি জেটিতে পণ্য উঠানামা বন্ধ

0
717

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
চট্টগ্রাম বন্দরের নিউমুরিং কন্টেইনার টার্মিনালের (এনসিটি) একটি জেটিতে জাহাজের ধাক্কায় পণ্য উঠানামায় ব্যবহৃত আধুনিক যন্ত্র ‘কী গ্যান্ট্রি ক্রেন’ ভেঙ্গে গেছে। আজ বৃহষ্পতিবার দুপুর সোয়া ১২টায় পণ্যবাহি কন্টেইনার জাহাজ ‘মাউন্ট ক্যামেরন’ জেটিতে ভিড়ানোর সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে জাহাজের ক্ষতি না হলেও কী গ্যান্ট্রি ক্রেনটি অচল রয়েছে; এর ফলে বন্দরের এনসিটি-২ জেটিতে জাহাজ থেকে পণ্য উঠানামা বন্ধ রয়েছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম বন্দর সচিব ওমর ফারুক বলেন, ‘জাহাজের ধাক্কায় বন্দরের এনসিটিতে আট নম্বর কী গ্যান্ট্রি ক্রেনটি সামনের অংশ ধাক্কা লেগে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কতটা এবং কী পরিমান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা জানতে বন্দরের প্রকৌশলী টীম কাজ করছে। বন্দর চেয়ারম্যান মহোদয়, মেম্বারসহ উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বন্দর ডক মাস্টারকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। তাদের প্রতিবেদনের পরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।
তিনি বলেন, এনসিটির যেই জেটিতে কী গ্যান্ট্রি ক্রেন ক্ষতি হয়েছে সেই ক্রেনটি আপাতত কাজ বন্ধ আছে; তবে বাকি দুটি ক্রেন দিয়ে জাহাজ থেকে পণ্য উঠানামা চলছে।

জানা গেছে, বন্দরের এনসিটি-৫ জেটিতে ভিড়ানোর জন্য বহির্নোঙর থেকে জাহাজ চালিয়ে আনছিলেন বন্দরের এক পাইলট। জোয়ারের সময় জেটিতে ভিড়ার আগে কন্টেইনার জাহাজ মাউন্ট ক্যামেরন ঘোরানোর সময় এনসিটি-২ জেটির কী গ্যান্ট্রি ক্রেনের সাথে ধাক্কা লাগে। এতে বন্দরের গ্যান্ট্রি ক্রেনটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরপর জাহাজটিকে কোনমতে নির্ধারিত এনসিটি-৫ জেটিতে ভিড়ানো হয়। দুর্ঘটনার পর থেকে এনসিটি-২ জেটিতে থাকা জাহাজ থেকে পণ্য উঠানামা বন্ধ রয়েছে।

উল্লেখ্য, এনসিটি টার্মিনালে মোট পাঁচটি জেটি রয়েছে, এর মধ্যে একটি জেটি ঢাকার পানগাঁও টার্মিনালের পণ্য ওঠানামার জন্য বরাদ্দ রয়েছে। বাকি চারটি জেটিতে ছয়টি গ্যান্ট্রি ক্রেন দিয়ে পণ্য ওঠানামা চলছে। নতুন চারটি গ্যান্ট্রি ক্রেন এনসিটিতে যুক্ত করে পণ্য ওঠানামা শুরু হয়েছে ২০১৯ সালের গত ২৫ আগস্ট থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here