জানুয়ারি মাসে ২৪ শতাংশ খালি কন্টেইনার বিদেশে গেছে

Dhaka Post Desk

বিশেষ প্রতিনিধি

25 October, 2021 0 Views

0

বিশেষ প্রতিনিধি

২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে প্রায় আড়াই লাখ একক কন্টেইনার পরিবহন করেছে শিপিং কম্পানিগুলো। এরমধ্যে আমদানি-রপ্তানি পণ্যভর্তি কন্টেইনার তো ছিলই; সেই হিসাবের মধ্যে খালি কন্টেইনারও ছিল বিশাল সংখ্যক। চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে রপ্তানি পণ্যভর্তি কন্টেইনার গেছে ৬১ হাজার ২০৯ একক; আর খালি কন্টেইনার বিদেশে গেছে ৫৮ হাজার ৪২০একক। মোট কন্টেইনার পরিবহন হিসাব বিবেচনায় নিলে এই পরিমান দাঁড়ায় প্রায় ২৪ শতাংশ। অর্থ্যাৎ জানুয়ারি জাহাজ দিয়ে কন্টেইনার পরিবহনের ২৪ শতাংশই ছিল খালি কন্টেইনার। যা একটা রেকর্ড।

কিন্তু জাহাজগুলো চট্টগ্রাম থেকে খালি কন্টেইনার বিদেশে নিয়ে যায় কেন? জানতে চাইলে মেডটেরানিয়ান শিপিং কম্পানির সহকারী মহাব্যবস্থাপক আজমীর হোসাইন চৌধুরী বলছেন, আমাদের যে পরিমান পণ্য কন্টেইনারে আমদানি হয়; সেই তুলনায় রপ্তানি হয় খুবই কম। ফলে ভারসাম্য না থাকায় আমদানি পণ্য নামিয়ে জাহাজগুলোকে খালি কন্টেইনার বিদেশে নিয়ে যেতে হয়। সেই খালি কন্টেইনার দিয়েই পরবর্তীতে আমদানি পণ্য দেশে আনা হবে।

তিনি বলছেন, আমদানি পণ্য নামিয়ে রপ্তানি পণ্যভর্তি হয়ে কিছু কন্টেইনার বিদেশে যায় কিন্তু এবার বিশ্বজুড়ে খালি কন্টেইনার সংকটের কারণে বেশি পরিমান খালি কন্টেইনার বিদেশে পাঠানো হয়েছে। অবশ্য বিশ্বজুড়ে খালি কন্টেইনার সংকটের কারণে আমরা বিদেশ থেকে খালি কন্টেইনার এনে রপ্তানি পণ্যের জাহাজীকরণ অনটাইম রেখেছি।

চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে জাহাজ পরিচালনাকারী শিপিং লাইনগুলোর হিসাবে, ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে পণ্য আমদানি হয়েছে ১ লাখ ২১ হাজার ৪৯৮ একক কন্টেইনার। আর খালি আমদানি হয়েছে মাত্র ৭৪৮ একক। এছাড়া রপ্তানি পণ্যভর্তি হয়ে ৬১ হাজার একক কন্টেইনার বিদেশে গেছে; আর ৫৮ হাজার ৪২০ একক কন্টেইনার খালি গেছে চট্টগ্রাম থেকে। সবমিলিয়ে ২ লাখ ৪১ হাজার ৮৭৫ একক কন্টেইনার পরিবহন করেছে জাহাজ কম্পানিগুলাে। এরমধ্যে সবচে বেশি খালি কন্টেইনার চট্টগ্রাম থেকে পাঠিয়েছে বিদেশি কম্পানি মায়ের্কস লাইন যার পরিমান ৭ হাজার ৬৮২ একক। আর দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওরিয়েন্ট ওভারসিজ কন্টেইনার লাইন খালি কন্টেইনার পাঠিয়েছে ৬ হাজার একক।

শিপিং লাইন সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রপ্তানি পণ্য পাঠাতে সপ্তাহে গড়ে ১৬শটি ৪০ ফুট খালি কন্টেইনার প্রয়োজন হয়; কিন্তু আমদানি পণ্য খালি হওয়ার পর আমরা পাই সর্বোচ্চ ৮শটি, বাকি খালি কন্টেইনার বিদেশ থেকেও আনতে পারছি না। সপ্তাহে আনতে পারছি সর্বোচ্চ ২শটি ৪০ ফুট কন্টেইনার। ফলে সংকটটা বড় আকার ধারন করেছে। একটি ৪০ ফুট দীর্ঘ খালি কন্টেইনার কলম্বো বন্দর থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে আনতে খরচ হচ্ছে ৫৫০ মার্কিন ডলার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *