‘ওয়েভার সনদ’ না নেয়ায় বিবিসি পেরু জাহাজকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা

Dhaka Post Desk

বিশেষ প্রতিনিধি

28 November, 2022

Views

‌’ওয়েভার সনদ’ না নিয়ে পণ্য পরিবহন করায় বাংলাদেশে আসা বিদেশি জাহাজ ‘বিবিসি পেরু’কে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে নৌ বানিজ্য অধিদপ্তর। এরমধ্যদিয়ে বাংলাদেশি পতাকাবাহি জাহাজের সুরক্ষা দিতে আইনের প্রয়োগ শুরু হয়েছে। আইনের আওতায় প্রথমবার একটি জাহাজকে প্রথম জরিমানা করল নৌ বানিজ্য অধিদপ্তর।
এই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিদেশি জাহাজের দেশিয় এজেন্টদের সংগঠন শিপিং এজেন্টস এসোসিয়েশন। তবে প্রশংসা করেছে দেশিয় পতাকাবাহি জাহাজ মালিকদের সংগঠন।
জানতে  চাইলে চট্টগ্রাম নৌ বাণিজ্য অধিদপ্তরের প্রিন্সিপাল অফিসার ক্যাপ্টেন গিয়াস উদ্দিন আহমেদ বলেন, বাংলাদেশ ফ্ল্যাগ ভেসেলস (প্রটেকশন অব ইন্টারেস্ট) আইন ২০১৯ অনুযায়ী বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজ ছাড়া সমুদ্রগামী বিদেশি কোনো জাহাজে পণ্য আমদানি-রপ্তানি করতে হলে কমপক্ষে ১৫ দিন আগে ওয়েভার সনদের আবেদন করতে হয়। এই সনদ নিয়েই পণ্য পরিবহন বাধ্যতামুলক। অনেকদিন ধরেই আমরা এ বিষয়ে সতর্ক করছিলাম। কিন্তু কেউ সাড়া দেয়নি। এখন আইনের প্রয়োগ শুরু করেছি।

তিনি বলেন, বিদেশি জাহাজ ‘বিবিসি পেরু’ সনদ না নিয়ে পণ্য পরিবহন করায় ৪ নভেম্বর আমরা তাদের শোকজ করেছি। কিন্তু জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় তাদেরকে ৫ লাখ টাকা প্রশাসনিক জরিমানা আরোপ করা হয়েছে।

নতুন আইনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের বৈদেশিক বাণিজ্যে সমুদ্রপথে পরিবাহিত পণ্যের অন্যূন ৫০ শতাংশ বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজে পরিবহণ করতে হবে। তবে বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজ অথবা সংশ্লিষ্ট বাণিজ্য অংশীদার দেশের পতাকাবাহী জাহাজ পাওয়া না গেলে এবং বাংলাদেশের অথবা উক্ত দেশের পতাকাবাহী জাহাজ দ্বারা কোনো কারণে পণ্য পরিবহণ করা সম্ভব না হলে অনুমতি সাপেক্ষে অন্য কোনো দেশের পতাকাবাহী জাহাজে পণ্য পরিবহণ করা যাবে। এক্ষেত্রে নির্ধারিত কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে নিতে হবে ওয়েভার সনদ। বর্তমানে নৌ বানিজ্য দপ্তর থেকে এই সার্টিফিকেট নেয়া বাধ্যতামূলক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.