উত্তাল সাগরে বাঁশখালীর ৭ ট্রলার ডুবে ২০ জেলে নিখোঁজ, একজনের মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
বঙ্গোপসাগরের বাঁশখালীতে উপকূলীয় এলাকায় অন্তত সাতটি মাছ ধরার ট্রলার ডুবে গেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে বিভিন্ন সময়ে এসব ট্রলারগুলো ডুবে যায়। এতে প্রায় ২০ জেলে নিখোঁজ রয়েছেন। গতকাল দুপুরে উপজেলার চাম্বল ইউনিয়নের উপকূলীয় এলাকা থেকে স্থানীয় জেলেদের প্রচেষ্টায় এক জেলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। উদ্দার হওয়া জেলের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।
এ বিষয়ে বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, মঙ্গলবার সকালে বিভিন্ন সময়ে উপজেলার চাম্বল ইউনিয়ন এলাকায় ছয়টি ট্রলার ও শেখেরখিল ইউনিয়ন এলাকায় একটি ট্রলার ডুবে যায়। এতে কমপক্ষে ২০ জেলে নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে। দুপুরে চাম্বল ইউনিয়ন এলাকায় একজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি কোস্টগার্ডকে জানানো হয়েছে। বিকেল থেকে তারা উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, চাম্বল ইউনিয়নের হেফাজুল ইসলামের মালিকানাধীন ‘এফবি মসলিক’ সকাল থেকে নিখোঁজ রয়েছে। এছাড়া জব্বার ও নন্না মিয়ার মালিকানাধীন ‘আল্লাহর দান’, মো. কেপাতুল্লার মালিকানাধীন ‘মায়ের দোয়া’, ফোরকান ও হেলালের মালিকানাধীন ‘এফবি মায়ের দোয়া’ এবং আলি নেওয়াজ চৌধুরীর মালিকানাধীন নতুন ও নামবিহীন একটি ট্রলার সোমবার রাত থেকে নিখোঁজ রয়েছে। এই এলাকা থেকে নিখোঁজ অপর একটি ট্রলারের মালিকের নাম পরিচয় জানা যায়নি।
এদিকে শেখেরখিল ইউনিয়নের ফারুক ও আব্দুল মালেকের মালিকানাধীন ‘এফবি মোরশেদ আলম’ নামের একটি ট্রলার মঙ্গলবার সকাল থেকে নিখোঁজ রয়েছে। স্থানীয়রা আশংকা করছেন, সাগরে উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে ট্রলারগুলো ডুবে গেছে।
কোস্টগার্ড পূর্বাঞ্চলের স্টাফ অফিসার (অপারেশন) লে. কমান্ডার হাবিবুর রহমান বলেন, বিকেল ৪টার দিকে বাঁশখালী উপকূলীয় এলাকায় আমরা ট্রলারডুবির খবর পেয়েছি। সঙ্গে সঙ্গে আমাদের জাহাজ ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছে। উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *